গৌরনদী সংবাদ

অজ্ঞাত রোগ নির্ণয়ে বিশেষজ্ঞ দল বরিশালে

বরিশালের বিভিন্ন উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অজ্ঞাত রোগের শিশুরা আক্রান্ত হবার পর রোগটি নির্ণয়ের জন্য বাংলাদেশ রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনষ্টিটিউট (আইইডিসিআর) এর পক্ষ থেকে ৭ সদস্যর তদন্ত কমিটি গঠন করে তা বরিশালে পাঠানো হয়েছে। রবিবার ওই বিশেষজ্ঞ দল জেলার আক্রান্ত এলাকার স্কুল পরিদর্শন করেছে।

অজ্ঞাত রোগ নির্ণয়ে বিশেষজ্ঞ দল বরিশালে
অজ্ঞাত রোগ নির্ণয়ে বিশেষজ্ঞ দল বরিশালে

বরিশাল জেলার আগৈলঝাড়া,গৌরনদী ও বাবুগঞ্জ উপজেলায় ৯ সেপ্টেম্বর থেকে একের পর এক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা অসুস্থ হয়ে পড়ায় এই টিম গঠন করা হয় বলে সূত্র দাবী করেছে।

রবিবার সন্ধ্যা ৭টায় সিভিল সার্জন ডা.এটিএম মিজানুর রহমান বলেন, ডা. দিলরুবা সুলতানাকে প্রধান করে গঠন করা টিম তার দপ্তরে অবস্থান করছেন। সিভিল সার্জন আরো জানান, আইইডিসিআর পরিচালক মাহমুদুর রহমান ১৩ সেপ্টেম্বর এক পত্রে ৭ সদস্যের এই টিমকে তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছেন। এজন্য আইইডিসিআর উর্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. দিলরুবা সুলতানাকে প্রধান করে ৭ সদস্যর কমিটি অপর সদস্যরা হলেন সংস্থার আউটব্রেক ইনভেস্টিগেশন অফিসার ডা.মো. ওয়ালিউর রহমান, রিসোর্স অফিসার ডা. আরিফুল ইসলাম, ফিল্ড রিসোর্স এ্যসিসট্যান্ট বিএম রাজিব আহম্মেদ, রিসোর্স এ্যসিসট্যান্ট ফরহাদ হোসেন আখন্দ, রিসোর্স এ্যসিসট্যান্ট মো. হায়াতুজ্জামান রনি ও মেডিকেল টেকনোলজি (ল্যাব), ভাইরোলজি বিভাগের মো. আ.মালেক।

এ বিষয়ে ডা. দিলরুবা বলেন, সোমবার থেকে তারা মাঠে কাজ করবেন। এসময় অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি শিক্ষার্থীদের রক্তসহ অনান্য নমুনা সংগ্রহ করবেন। এর পর পরীক্ষা করে বলতে পারবেন রোগটি মাস্ সাইকোজনিক না আবহাওয়াজনিত নতুবা অন্য কোন সমস্যা জনিত কারণে হয়েছে কিনা।

আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা  কর্মকর্তা ডা. মো. সেলিম মিয়া বলেন রবিবার দুপুরে এ মর্মে তিনি চিঠি পেয়েছেন।  তবে এর আগে বরিশাল স্বাস্থ্য বিভাগের পরিচালক ডা. ওহাব হাওলাদার ও সিভিল সার্জন ডা. এটিএম মিজানুর রহমান আগৈলঝাড়ার বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার দুপুরে ক্লাশ চলাকালীন আগৈলঝাড়ার মোলাপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৬ জন এবং গৌরনদী উপজেলার মাহিলাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪জন, মাহিলাড়া এ.এন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪০ জন শিক্ষার্থী অসুস্থ হওয়ার মধ্যদিয়ে রোগটির সূচনা হয়।

এরপর বরিবার দুপুরে বাবুগঞ্জ উপজেলার আগরপুর আলতাফ মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৫ শিক্ষার্থী ক্লাশ চলাকালীন সময় অসুস্থ হয়ে পরে।

এ নিয়ে গত ছয়দিনে জেলার আগৈলঝাড়া, গৌরনদী ও সর্বশেষ বাবুগঞ্জের সাতটি স্কুল ও একটি মাদ্রাসার প্রায় দেড় শতাধিক শিক্ষার্থীরা ক্লাশ চলাকালীন সময়ে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...