গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীতে পুত্র হত্যাকারী মায়ের ঠাঁই মিলেছে থানা হাজতে

প্রেমিকের সাথে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমাতে গিয়ে পাকড়াও হয়ে এখন থানা হাজতে ঠাঁই মিলেছে প্রবাসীর স্ত্রী পারভীন বেগমের। গত রবিবার দুপুরে পুলিশ তাকে আটক করেছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাটি বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বেজহার গ্রামের।

ওই গ্রামের ব্রুনাই প্রবাসী জালাল সিকদার অভিযোগ করেন, তিনি প্রবাসে থাকার সুবাধে তার স্ত্রী পারভীন বেগম দীর্ঘদিন থেকে একই গ্রামের এক যুবকের সাথে পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে পরে। গত ৩০ এপ্রিল রাতে তাদের অবৈধ সম্পর্ক দেখে ফেলায় পারভীন ও তার পরকীয়া প্রেমিক পরিকল্পিত ভাবে তার কলেজ পড়ুয়া পুত্র মনিরুল ইসলাম বাবুকে হত্যা করে এলাকায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর অপপ্রচার রটিয়ে দেয়। খবর পেয়ে তিনি তাৎক্ষনিক দেশে ফিরে আসেন। পরবর্তীতে স্ত্রীর চাঁপের মুখে তিনি তার ছেলের মৃত্যুর মূলরহস্য উদঘাটন করতে পারেননি। নিহত মনিরুল ইসলাম বাবু বরিশাল ইনফ্রা পলিটেকনিক ইনষ্টিটিউটের কম্পিউটার বিভাগের ছাত্র ছিলেন।

জালাল সিকদার আরো অভিযোগ করেন, অতিসম্প্রতি তার স্ত্রীর সাথে পল্লী বিদ্যুতের লাইনম্যান হিসেবে গৌরনদীতে কর্মরত রাসেল নামের এক যুবকের পরকীয়া সর্ম্পক গড়ে ওঠে। ওই যুবকের সাথে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমাতে গিয়ে পুলিশ তার স্ত্রী পারভীনকে রবিবার দুপুরে আটক করে। এ ঘটনার পর পুত্র হত্যার প্রকৃত রহস্য উদঘাটনের জন্য তিনি (জালাল) ওইদিনই বরিশাল আদালতের স্ত্রী পারভীন বেগমসহ অজ্ঞাতনামা আরো ২ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...