গৌরনদী সংবাদ

প্রতিবন্ধী তোহাবের ঠাঁই মিলেছে রান্নাঘরে

বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী হয়ে জন্মগ্রহণ করাই অভিশাপ হয়েছে কিশোর তোহাব খানের (১৫)। সৎ মায়ের সংসারে চরম অবহেলায় তাই তার ঠাঁই মিলেছে রান্নাঘরে। পুরো রান্নাঘরটি তালাবদ্ধ করে তারমধ্যে পায়ে রশি দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে প্রতিবন্ধী তোহাবকে। এ ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাটি বরিশালের গৌরনদী উপজেলার রামসিদ্ধি গ্রামের।

জানা গেছে, ওই গ্রামের বিদেশ ফেরত মোহন খানের পুত্র তোহাব খান জন্ম থেকেই বুদ্ধি প্রতিবন্ধী। তোহাবের তিন বছর বয়সে তার গর্ভধারিনী মাকে তালাক দিয়ে মোহন খান দ্বিতীয় বিয়ে করে সংসার বাঁধেন। এরপরই সৎ মায়ের সংসারে বাড়তি বোঝা হয়ে দাঁড়ায় প্রতিবন্ধী তোহাব।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, চিকিৎসার নামে তোহাবকে বাড়ি থেকে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্নস্থানে নিয়ে আশ্রয় কেন্দ্রে দেয়ার জন্য মোহন খান ও তার দ্বিতীয় স্ত্রী শত চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। বর্তমানে তোহাবকে বাড়তি বোঝা মনে করে দীর্ঘদিন থেকে তাদের বিল্ডিংয়ের পাশের রান্নাঘরের মধ্যে পায়ে রশি দিয়ে বেঁধে রেখে পুরো রান্নাঘরটি তালাবদ্ধ করে রাখা হয়।

সরেজমিনে দেখা গেছে, সম্পূর্ণ উলঙ্গ ও পায়ে রশি দিয়ে বাঁধা অবস্থায় রান্নাঘরের মেঝেতে শুয়ে আছে প্রতিবন্ধী তোহাব খান। আশ্রয় কেন্দ্রে দেয়ার জন্য চেষ্টা চালানোর সত্যতা স্বীকার করে প্রতিবন্ধী কিশোর তোহাবের পিতা মোহন খান ও তার সৎ মা বলেন, কোন আশ্রয় কেন্দ্রে টাকার বিনিময়েও তোহাবকে দেওয়া গেলে তারা দিতে রাজি আছেন।

স্থানীয়রা প্রতিবন্ধী তোহাবকে তার সৎ মায়ের হাত থেকে বাঁচাতে সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...