গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীতে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতন, স্বামী গ্রেপ্তার

বরিশালের গৌরনদী উপজেলার পিঙ্গলাকাঠী গ্রামে ৫ লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী রোজিনা বেগমকে (৩২) অমানুর্ষিক নির্যাতন করেছে যৌতুকলোভী স্বামী শাহীন ফকির। নির্যাতনের শিকার হয়ে গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালের বিছানায় কাতরাচ্ছেন। এ ঘটনায় রোজিনা বাদি হয়ে সোমবার গৌরনদী থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ যৌতুকলোভী স্বামী শাহীন ফকিরকে গ্রেপ্তার করে বিকেলে বরিশাল আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করেছে।


গৌরনদী মডেল থানার ওসি মো. আলাউদ্দিন মিলন জানান, উপজেলার পিঙ্গলাকাঠী গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদ ফকিরের পুত্র শাহীন ফকির ১৫ বছর পূর্বে নারায়গঞ্জের ফতুল্লা থানার ভোলাই গ্রামের ধর্নাঢ্য আসাদ আলী মাতুব্বররের কন্যা রোজিনা বেগমকে বিয়ে করেন।


অসুস্থ রোজিনা বেগম জানান, বিয়ের পর থেকে বহুবার তার পিতার কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা যৌতুক হিসেবে দিয়েছেন। সম্প্রতি শাহীন ব্যবসা করার জন্য ৫ লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য চাপ প্রয়োগ করে। টাকা দিতে অস্বীকার করায় প্রায়ই শাহীন ও তার মা জাহানারা বেগম শারিরিক ও মানুষিক নির্যাতন করত। সর্ব শেষ রবিবার দাবিকৃত যৌতুকের জন্য চাপ দেয়। দিতে অস্বীকার করলে তাকে অমানুষিক নিযার্তন চালায়। রোজিনার চাকচিৎকারের প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে মুমুষ অবস্থায় উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় রোজিনা বেগম বাদি হয়ে সোমবার সকালে শাহীন ফকির ও তার মা জাহানারা বেগমকে আসামি করে গৌরনদী থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) সিদ্দিকুর রহমান বলেন, ‘মামলা দায়েরের পরপর অভিযান চালিয়ে থানার কালনা এলাকা থেকে যৌতুকলোভী স্বামী শাহীন ফকিরকে গ্রেপ্তার করি। বিকেলে বরিশাল আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করেছি’।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply