আন্তর্জাতিক

বাংলাদেশে ৭১টি ভারতীয় জঙ্গি ঘাঁটি থাকার দাবি করেছে ভারত

বাংলাদেশে ৭১টি ভারতীয় জঙ্গি ঘাঁটি রয়েছে এবং ভারতীয় বিএসএফ কর্মকর্তারা ওই তালিকা বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর হাতে দিয়েছে। বুধবার ভারতের কলকাতাভিত্তিক সংবাদ সাইট ‘এই সময়’ এ সংক্রান্ত একটি খবর প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পড়শি দেশের সরকার ও সেনাকে এ ব্যাপারে বার বার সতর্ক করা সত্বেও লাভের লাভ কিছু হয়নি। সীমান্তের ওপারে বহাল তবিয়তে আশ্রয় নিয়েছে অপরাধীরা। অবশেষে বাংলাদেশে ভারতীয় জঙ্গি শিবিরের তালিকা তৈরি করল সমাধান খুঁজতে মরিয়া ভারতীয় সীমান্তরী বাহিনী-বিএসএফ। ভারতে নানা অপরাধ সংঘটিত করে সীমান্ত পেরিয়ে নিশ্চিন্তে বাংলাদেশে গা-ঢাকা দেয়া বহু বছর ধরেই ভারতীয় জঙ্গিদের দস্তুর।

এতে বলা হয়, গত ২০ থেকে ২৫শে আগস্ট দিল্লিতে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তাদের এক সম্মেলনে ফের প্রতিবেশী রাষ্ট্রে ভারতীয় জঙ্গি অস্তিত্বের বিষয়টি তোলেন বিএসএফ কর্তারা। বাংলাদেশে অবস্থিত মোট ৭১টি ভারতীয় জঙ্গি ঘাঁটির তালিকা বাংলাদেশের সীমান্ত সেনা কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেয়া হয় বলে জানা গেছে।

গোয়েন্দাদের নজর এড়াতে গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশকে পাখির চোখ করেছে দেশের বেশ কিছু বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন। এ ব্যাপারে বাংলাদেশ সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিজিবিকে বহু বার সতর্ক করা হয়েছে। বাংলাদেশ সরকারের দাবি, ব্যাপক তল্লাশি চালিয়েও এমন কোনো ঘাঁটির সন্ধান পাওয়া যায়নি।

দিল্লির বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, জঙ্গি অনুপ্রবেশ রুখতে এবার যৌথ উদ্যোগে দুই দেশের মধ্যে চোরাচালানের পথগুলিকে চিহ্নিত করা হবে। প্রতি বছর সরেজমিনে তদন্ত করে তার নিরাপত্তা ব্যবস্থার সাম্প্রতিক অবস্থান সম্পর্কেও দুই পক্ষের মধ্যে তথ্য আদানপ্রদান করা হবে বলে ঠিক হয়েছে।

এছাড়া বিজিবিকে সীমান্ত ব্যবস্থাপনা নিয়ে বিএসএফ-এর প্রশিক্ষণ দেয়ার ব্যাপারেও সম্মেলনে আলোচনা হয়। এ ব্যাপারে দুই তরফের মধ্যে কথা পাকা হয়েছে বলে বিএসএফ সূত্রে খবর।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...