গৌরনদী সংবাদ

বাল্যবিয়ের খেসারত দিলেন বাবা

মেয়েকে বাল্যবিয়ে দিয়ে অবশেষে জীবনের বিনিময়ে তার খেসারত দিয়েছেন বাবা জামাল সরদার (৪৫)। শনিবার সকালে বিষপান করে শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, জেলার গৌরনদী বন্দরের কাঁচামাল ব্যবসায়ী চরআইরকান্দি গ্রামের জামাল সরদার তার নবম শ্রেণীতে পড়ুয়া কন্যাকে (১৪) প্রতিবেশীদের প্ররোচনায় একই গ্রামের ভাষাই চৌকিদারের পুত্র মাহেন্দ্র চালক আবু হানিফের (৩২) সাথে গত দেড় মাস পূর্বে বিয়ে দেন। গৌরনদী গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণীর ওই ছাত্রী শুরু থেকেই বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে তার পরিবারকে অবহিত করেও কোন সুফল পায়নি। বিয়ের একমাস যেতে না যেতেই স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে ফিরে নববধূ আর স্বামীর বাড়িতে যাবেনা বলে তার পরিবারকে জানায়। এ নিয়ে শুক্রবার রাতে বাবা-মায়ের সাথে তার তুমুল বাকবিতণ্ডা হয়।

সূত্রে আরও জানা গেছে, মেয়ের বিভিন্ন প্রশ্নের কোন সদুত্তর দিতে না পেরে অবশেষে মেয়েকে বাল্যবিয়ে দেয়ার খেসারত হিসেবে পরিবারের সবার অজান্তে শনিবার ভোরে বিষপান করে জামাল। মুমুর্ষ অবস্থায় প্রথমে তাকে গৌরনদী হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাৎক্ষনিক তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করার পর সে (জামাল) মারা যায়।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply