গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীতে থ্রি হুইলার মালিক ও শ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ

মণীষ চন্দ্র বিশ্বাস, এইচ এম সুমন : মহাসড়কে মাহিন্দ্রা, ব্যাটারি চালিত যানবাহনসহ থ্রি হুইলার বন্ধের প্রতিবাদে রবিবার সকালে থ্রি হুইলার মালিক ও শ্রমিকরা ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের গৌরনদী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় কাফনের কাপড় মাথায় বেঁধে অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। গৌরনদী-পয়সার-হাট ও গোপালগঞ্জ মহাসড়কের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়। মুশলধারে বৃষ্টি উপেক্ষা করে সকাল ৯টা থেকে তিন ঘণ্টা ব্যাপী মহাসড়কে বেরীকেট দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়। এ সময় মহাসড়কের দু’পাশে বহু যানবাহন আটকা পরে।

অবরোধ চলাকালে বক্তব্য রাখেন শ্রমিক নেতা সত্তার হাওলাদার, কাজী আল আমীন, রাজ্জাক তালুকদার, শাহ মোঃ কালাম, আলী হোসেন প্রমুখ।

পরবর্তীতে পৌর মেয়র হারিছুর রহমানের ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ নুরুল ইসলামের আশ্বাসে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের অবরোধ প্রত্যাহার করলেও গৌরনদী-পয়সার-হাট ও গোপালগঞ্জ মহাসড়কের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়।

এদিকে সকারের জারি করা প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, সড়ক নিরাপত্তা বিধানে এ আদেশ আজ ১ আগস্ট থেকে কার্যকর করা হবে। জাতীয় মহাসড়কে থ্রি-হুইলার অটোরিকশা ও অটোটেম্পু এবং সব শ্রেণীর অযান্ত্রিক যানবাহন চলাচল করতে পারেবে না।

কোনভাবেই এই প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার করা হবে না কঠোর হুঁশিয়ার উচ্চারত করে সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এমএএন ছিদ্দিক বলেন, সরকারের জারি করা প্রজ্ঞাপন কোনোভাবে লঙ্ঘন করার অভিযোগ পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, মহাসড়কে ধীরগতির যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আগে থেকেই ছিল। ২০০৬ সাল থেকে ব্যাটারিচালিত নছিমন, করিমন, ভটভটি চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়। নতুন করে নিষিদ্ধ হচ্ছে সিএনজি চালিত অটোরিকশা।

গত ২৭ জুলাই সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগের প্রজ্ঞাপনে, সড়ক নিরাপত্তা বিধানে সব জাতীয় মহাসড়কে থ্রি হুইলার অটোরিকশা/অটোটেম্পো এবং সব ধরনের অযান্ত্রিক যানবাহন চলাচল নিষিদ্ধ এবং ১ আগস্ট শনিবার থেকে তা কার্যকর কার্যকর করা হয়।

এর আগে গত ২২ জুলাই সচিবালয়ে সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়ে এক সভায় মহাসড়কে অটোরিকশা নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

ওই বৈঠক শেষে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে সাংবাদিকদের বলেছিলেন, মহাসড়কে নতুন উপসর্গ সিএনজি অটোরিকশা। যা সেকেন্ডের মধ্যে দুর্ঘটনায় পড়ে। এগুলো মহাসড়কে খুব বেশি হারে চলে এসেছে। এ সকল অটো রিকশা দুর্ঘটনা ঘটাচ্ছে। তাই দুর্ঘটনা রোধে মহাসড়কগুলোতে সিএনজিচালিত অটোরিকশা চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply