জাতীয়

হাজারীবাগে গৃহবধূকে হত্যা, স্বামী আটক

রাজধানীর হাজারিবাগে তানজিলা আক্তার সিমু (২২) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। রোববার ভোরে ১৬৭/৪ নম্বর বুরহানপুরের বাসায় এ ঘটনায় গৃহবধূর স্বামী আলাউদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ। গৃহবধূর স্বামীর দাবি, সিমু আত্মহত্যা করেছে। তবে স্বজনদের দাবি, সিমুকে শ্বাসরোধে হত্যা করে আত্মহত্যার নাটক সাজানো হয়েছে।

সিমুর স্বামী আলাউদ্দিন জানান, পারিবারিক বিষয় নিয়ে তার স্ত্রীর সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া লাগত। এর জের ধরে ভোরে তাদের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। তখন তিনি তাদের দেড় বছরের মেয়েকে নিয়ে বাসার বাইরে চলে যান। এর কিছুক্ষণ পরে বাসায় ফিরে দেখেন তার স্ত্রী ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ঝুলছে। তখন তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় সিকদার মেডিকেলে নিয়ে আসেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

অন্য দিকে সিমুর দুলাভাই আনিসুর রহমান জানান, তিন বছর আগে তারা দুজন ভালোবেসে বিয়ে করেন। এ কারণে সিমুর বাবা-মা তাদের মেনে নেননি। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে পারিবারিক বিষয় নিয়ে প্রায়ই ঝামেলা হত। এসব ব্যাপারে তার শ্যালিকা তাকে (দুলাভাই) বলতেন।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, সিমু আত্মহত্যা করেনি। তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে আত্মহত্যার নাটক সাজিয়েছে আলাউদ্দিন।

ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ মোজাম্মেল হক জানান, ওই গৃহবধূর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে রাখা হয়েছে। এছাড়া জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গৃহবধূর স্বামী আলাউদ্দিনকে আটক করা হয়েছে।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply