বরিশাল

দুর্বৃত্তদের এসিড নিক্ষেপে এক গৃহবধু’র শরীর ঝলসে গেছে

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার ছয়গ্রাম এলাকায় শনিবার রাতে মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা এসিড নিক্ষেপ করে গৃহবধু পারভীন বেগমের (৩৫) শরীর ঝলসে দিয়েছে। এসিড দ্বগ্ধ পারভীন বেগমকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের সার্জারী (মহিলা) ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

এসিড দ্বগ্ধ পারভীন জানান, গার্মেন্টেসে কাজ করার সুবাদে ২০০১ সালে আগৈলঝাড়া উপজেলার ছয়গ্রাম এলাকার সোহাগ বেপারীর সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে এর পর তাদের বিয়ে হয়। পারভীন নেত্রকোনা জেলার মদন থানার হাসিমপুর গ্রামের ইসমাইল হোসেনের মেয়ে । বিয়ের পর সে আগৈলঝাড়ায় স্বামীর বাড়ি এসে বসবাস করেন।

বিয়ের পর তার শ্বশুর ও শাশুরি তাকে মেনে নিতে পারেননি। এ কারণে বিভিন্ন সময় স্বামী, শ্বশুর, শাশুরি, দেবর ও ভাসুররা তাকে বিভিন্ন সময় নির্যাতন করতো। এ ঘটনায় গত সপ্তাহে আগৈলঝাড়া থানায় একটি সাধারন ডায়রী করেন। এতে তার স্বামী ও শ্বশুর-শাশুরি তার ওপর ক্ষিপ্ত হন।

পারভীন জানান, শনিবার রাত সাড়ে ১০টার তিনি প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে বের হলে মুখোশধারী ৩/৪ জন দুর্বৃত্ত তাকে লক্ষ্য করে এসিড ছুড়ে মারে। এতে তার শরীরের পেছন দিক (পিঠ) ঝলসে যায়। তার ডাক চিৎকারে অন্যান্যরা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে গৌরনদী হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠায়।

বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালের সার্জারী বিভাগের (মহিলা) প্রধান অধ্যাপক ডা. এ.এম.এস.এম সারফুজ্জামান রুবেল বলেন, এটা ক্যামিক্যাল বার্ন। তার শরীরেরে ১০/১২ ভাগ পুড়েছে। তবে এ ঘটনায় এখনও কোন মামলা হয়নি।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply