গৌরনদী সংবাদ

গৌরনদীর জঙ্গলপট্টি দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা জরাজির্ণ গৃহে ক্লাশ করছে

প্রতিষ্ঠার ৩৮ বছর পরেও গৌরনদীর মধ্য জঙ্গলপট্টি পীর বাদশা মিঞা (রঃ) দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের ক্লাশ করার জন্য কোন ভবন তৈরী না হওয়ার কারণে তারা জরাজির্ন গৃহে ক্লাশ করছে।

কয়েকদিন আগে সরেজমিন ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে দেখাগেছে, এখানে একই সাথে ইবতেদায়ী মাদ্রাসার প্রথম শ্রেনী থেকে দাখিল (দশম শ্রেনী) পর্যন্ত ধর্মীয় শিক্ষা ব্যবস্থা চালু রয়েছে।

শিক্ষকদের সাথে আলাপ করে জানাগেছে, ১৯৭৬ সালে ওই এলাকার আলহাজ্ব নাজেম আলী সন্যমত নামের একজন সমাজসেবী স্থানীয়দের সহয়তায় তার নিজ বাড়ীর সামনে এ মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠা করেন।

১৯৭৯ সালে মাদ্রাসাটি এমপিও ভুক্ত হয়। বর্তমানে এখানে ১৫ জন শিক্ষক ৩ জন কর্মচারী কর্মরত রয়েছেন। মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীর সংখ্যা চার শতাধিক। শিক্ষা-সংস্কৃতির দিক থেকে মাদ্রসাটির সুনাম রয়েছে।

২০০২ সালে গৌরনদী উপজেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপিঠ হিসেবে অত্র মাদ্রাসা সনদ লাভ করে।

১৯৯৯,২০০০ ও ২০০১ সালে কাবাডি প্রতিযোগিতায় অত্র মাদ্রসার শিক্ষার্থীরা বিভাগীয় পর্যায়ে ৩ বার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

১৯৯৭ সালে অত্র মাদ্রাসায় ২ রুম বিশিষ্ট একটি একাডেমিক ভবন তৈরী করা হয়। ওই ভবনের একটি কক্ষ শিক্ষকদের জন্য অফিস রুম হিসেবে এবং অন্য রুমটি শিক্ষার্থীদের জন্য ক্লাশ রুম হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এ ছাড়া বহু আগে তৈরী করা টিনের তৈরী ২ টি জরাজির্ণ ঘরে শিক্ষার্থীদের ক্লাশ নেয়া হচ্ছে।

মাদ্রাসার বর্তমান সুপার মাওলানা আব্দুল মজিদ জানান, ঝড়-বৃষ্টির দিনে শিক্ষার্থীদের নিয়ে আতংকে থাকতে হয়। তখন টিনের ঘরের চালা দিয়ে পানি পড়ে। বৃষ্টির পানিতে ছাত্র-ছাত্রীদের বই-খাতা ভিজে নষ্ট হয়ে যায়। এছাড়া ঝড়ে ঘর উপড়ে পড়ার আশংকা থাকে। এ সব কারণে অনেক সময় ক্লাশ নেয়া সম্ভব হয়না। তাই ঝড়-বৃষ্টির দিনে মাদ্রাসায় শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কমে যায় বলে তিনি জানান।

বরিশাল-১ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর বরিশালের আগৈলঝাড়ার সেরালেরস্থ বাড়ী থেকে মাত্র কয়েক,শ গজ দুরে এ মাদ্রাসাটি অবস্থিত। তার নিজ এলাকার এ মাদ্রাসাটির এ জরাজির্ণ অবস্থা দেখে কেউ কেউ এটাকে ”আলোর নিচে অন্ধকার” বলে মন্তব্য করেছেন।

মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির বর্তমান সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ ওলিউল্লাহ জানান, আমরা মাদ্রাসার সমস্যার বিষয়টি নিয়ে মাসখানেক আগে বর্তমান এমপি,র সাথে যোগাযোগ করেছি। তিনি অতিশিঘ্রই এখানে একটি নুতন ভবন তৈরী করে দেয়ার আশ্বাষ দিয়েছেন।

সংবাদ : জামাল উদ্দিন


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply