খেলাধুলা

বার্সাকে মেসি-নেইমারই জেতালেন

লা লিগার ম্যাচে স্প্যানিস জায়ান্ট বার্সেলোনা মাঠে নেমেছিল রায়ো ভালকানোর বিপক্ষে। মেসি আর নেইমারের গোলে জয় পেয়েছে বার্সা। ২-০ গোলে লুইস এনরিকের শিষ্যরা হারিয়েছে ভালকানোকে। ফলে এবারের লা লিগায় অপ্রতিরোধ্য হয়েই রইল কাতালানরা।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গেল ম্যাচে লা লিগার অপরাজিতরা ৩-২ গোলে পিএসজির কাছে হেরেছিল। হারের সেই স্বাদ ভুলতেই কিনা লুইস এনরিকের শিষ্যরা মাঠে নেমেছিল জয়ের প্রত্যাশা নিয়ে। আগে থেকেইেএনরিক জয় ভিন্ন কোনো বিকল্প নেই বলে জানিয়েছিলেন।

তাই, ম্যাচের শুরুতে এনরিক মাঠে তার শিষ্যদের খেলিয়েছেন ৪-৩-৩ ফরম্যাটে। প্রথম থেকেই মাঠে পাঠিয়েছিলেন আলভেজ, পিকে, জাভিদের মতো অভিজ্ঞদের সঙ্গে নেইমার, মেসি, মুনির, ইনিয়েস্তা, বাসকুয়েটদের। তার ছাত্ররা শুরু থেকেই আক্রমণ শানাতে থাকে ভালকানোর রক্ষনে।

তবে, গোলের দেখা পেতে কাতালানদের প্রথমার্ধের ৩৫ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়। ম্যাচের ১৫ মিনিটেই গোলের দেখা পেতে পারতো বার্সা। নেইমারের পাস থেকে বল পেয়ে দারুণভাবে নিয়ন্ত্রনে নিয়েও ভালকানোর গোলরক্ষক টোনোর দক্ষতায় গোল বঞ্চিত হয় মেসি।

ম্যাচের ৩৫ মিনিটে পিকের বাড়ানো বলে গোল করেন মেসি। এর এক মিনিট পরে মেসির দেখানো পথে গোল করে ব্যবধান দ্বিগুন করেন নেইমার। ব্রাজিলিয়ান তারকার গোলে সহায়তা করেন তরুন তারকা মুনির।

ম্যাচের প্রথমার্ধে আর কোনো গোল না হলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে অতিথিরা বিরতিতে যায়। তবে, বিরতিতে যাবার আগে ম্যাচের ৪১ মিনিটে মুনির-নেইমারের চেষ্টায় আরো একটি গোলের সম্ভাবনা জাগিয়ে তুলেছিল।

বিরতি থেকে ফিরে ম্যাচের ৬০ মিনিটে ভালকানো পরিনত হয় দশজনের দলে। ম্যাচের ৩৭ মিনিটে প্রথম হলুদ কার্ড পাওয়া মরচিলো ম্যাচের ৬০ মিনিটে আরেকটি হলুদ কার্ড দেখায় মাঠের বাইরে যেতে হয় তাকে।

এর ছয় মিনিট পরে তৃতীয় গোলের সুযোগ হাতছাড়া হয় এনরিকের ছাত্রদের। ম্যাচের ৬৬ মিনিটে পেদ্রো আর ম্যাথিউয়ের একটি প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়। এছাড়া ৮৫ মিনিটের মাথায় মেসির নেওয়া ২০ গজ দূরের শটটি গোলবারের উপর দিয়ে চলে যায়। আর ৯০ মিনিটের মাথায় আরো একটি গোল বঞ্চিত হন মেসি।

যোগ করা অতিরিক্ত সময়ে স্বাগতিক ভালকানো পরিনত হয় নয়জনের দলে। ম্যাচের ৬৩ ও ৯১ মিনিটে দুটি হলুদ কার্ড পাওয়ায় ৪৬ মিনিটের সময় মাঠে নামা ভালকানোর অ্যাকুইনোকে মাঠের বাইরে বের করে দেওয়া হয়।

ম্যাচের বাকি সময়ে আর কোনো গোল না হলে ২-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বার্সেলোনা। ফলে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলে কোনো গোল হজম না করেই শীর্ষে রইল কাতালানরা।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...