পালসার মোটর সাইকেল কিনে না দেয়ায় ঘর পুড়িয়ে দিয়েছে ছেলে!

মায়ের কাছে দাবীকরা পালসার মোটর সাইকেল কিনে না দেয়ায় আগুন দিয়ে আপন ঘর পুড়িয়ে দিয়েছে বখাটে ছেলে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ছেলে মো. জলিল হাওলাদারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বিমান বন্দর থানার তিলক গ্রামে আজ রবিবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটে। গ্রেফতারকৃত জলিল ওই গ্রামের মৃত পুলিশ কনস্টেবল মালেক হাওলাদারের ছেলে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী বিমান বন্দর থানার এএসআই জুয়েল জানান, জলিলের বাবা মালেক হাওলাদার পুলিশের কনস্টেবল ছিলেন। ৩-৪ বছর আগে বিদ্যুত স্পৃস্ট হয়ে কনস্টেবল মালেক মারা যায়। এরপর ৩ মেয়ে ও এক ছেলেকে নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছিলেন তার স্ত্রী। গত কিছুদিন ধরে মায়ের কাছে একটি পালসার মোটর সাইকেল কিনে দেয়ার বায়না ধরে জলিল। কিন্তু তার মা মোটর সাইকেল কিনে দিয়ে অস্বীকৃতি জানিয়ে আসছিলেন। এ নিয়ে বাদানুবাদের এক পর্যায়ে আজ দুপুর ১টার দিকে জলিল তাদের টিন-কাঠের ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়। এলাকাবাসী আগুন নেভানোর চেস্টা করলেও আশপাশে কোন পুকুর কিংবা পানির উৎস্য না থাকায় পুরো ঘর এবং ঘরের যাবতীয় মালামাল পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত বখাটে ছেলে জলিলকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় প্রচলিত আইনে জলিলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিমান বন্দর থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন।

কাশীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লিটন মোল্লা জানান, জলিল বখাটে হিসেবে এলাকায় পরিচিত। মোটর সাইকেল কিনে না দেয়ায় এর আগে সে তার মাকে একাধিকবার মারধর করেছে। স্থানীয় চেয়ারম্যান হিসেবে তিনি নিজেও একাধিকবার জলিলকে শাসিয়েছেন। কিন্তু কোন কিছুতেই কাজ হয়নি। শেষ পর্যন্ত মোটর সাইকেল কিনে না দেয়ায় আগুন দিয়ে নিজেদের ঘরই পুড়িয়ে দিয়েছে সে।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

শেয়ারঃ