বরিশাল

উজিরপুরে পালিত সাপের দংশনে একজনের মৃত্যু

উজিরপুর নিজের পালিত কিং কোবরা সাপের দংশনে নিহত হয়েছে উপজেলার শিকারপুর গ্রামের মৃত. ফজলুল হক ইঞ্জিনিয়ারের মেঝ ছেলে আশ্রাফুল ইসলাম আল-আমিন(২৮)। গত ২৬ আগষ্ট সকাল সাড়ে ১০টায় নিজ ঘরে কিং কোবরাকে প্রতিদিনের মত খাবার দিতে গেলে হাতের কব্জির উপর ছোবল দেয়। আল-আমিন নিজের হাত কেটে বিষ বের করার চেষ্টা করে কিন্তু বিষ শরীরের বিভিন্ন অংশে ছড়িয়ে পরলে যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে নিজেই বাই-সাইকেল চালিয়ে উজিরপুর হাসপাতালে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার সাপের ছোবলের কথা জানালে তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করে। চিকিৎসা শেষে কর্তব্যরত ডাক্তার রাত ১১টায় তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এরপর মৃত দেহ নিজ বাড়ীতে নিয়ে আসলে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

এদিকে তার মা ও স্থানীয়দের অনুরোধে সাপের বিষ নামানোর জন্য বিভিন্ন এলাকার নামী দামী ওঝা/গারুলী আনা হলে তারা কিছু সময় চেষ্টা করে মৃত বলে ঘোষণা করে।

নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী জানান, আল-আমিন দীর্ঘ ২ বছর ধরে ড্রামের মধ্যে একটি বিশাল আকারের জাতীসাপ লালন পালন করত। কিছুদিন আগে আরো একটি ছোট কোবরা সাপ ওই ড্রামে ছেড়ে দেয়। দুটি সাপ নিয়ে প্রায়ই সাপুরীয়াদের মত বিভিন্ন খেলাধুলা করে সময় পার করত। প্রতিদিন তাদেরকে মাছ, ব্যাঙ ও দুধ সহ বিভিন্ন খাবার খাওয়াতো। ঘটনার দিন খাবার দিতে গিয়ে ওই সাপের দংশনেই তার মৃত হয়।

২৭ আগষ্ট উজিরপুর মডেল থানা পুলিশ সাপ দুটোকে থানায় নিয়ে যায়।

নিহতকে বিকাল ৫টায় জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করেন।


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply