ফিচারবরিশাল

ঘুরে আসুন শাপলার রাজ্য সাতলা গ্রাম

লাল শাপলা। আমাদের জাতীয় ঐতিহ্যের অহংকার। বিস্তৃত এলাকা জুড়ে এই লাল শাপলার সমারোহ দেখতে কার না ভালো লাগে। কিন্ত এই ভালো লাগা-ভালোবাসায় পরিণত হলে-আপনাকে বরিশালের মায়ার জড়াতে হবে।

রূপসী বাংলার এই রূপের খোঁজে শহর ছাড়িয়ে উজিরপুর উপজেলা-আর সেখানেই সাঁতলা নামক স্থানে প্রাকৃতিক ভাবে এই শাপলার অবারিত রঙ্গিন রূপ আপনাকে শুধু মুগ্ধ নয় স্তম্ভিত করে দেবে।

বরিশালের নথুল্লাবাদ বাস স্ট্যান্ড থেকে ৩০ মিনিট পর পর সাঁতলার গাড়ী ছাড়ে। ভাড়া নব্বই টাকা।

অথবা, গৌরনদী থেকেও খুব সহজে সাঁতলা যাওয়া যায়।

সাঁতলা জায়গার নাম হলেও এটা একটি বিলের নাম। এক সময়ে বর্ষাকালে এটা সম্পুর্ণ ডুবে যেতো। অপরূপ সাঁজে দেখা দেয় সাঁতলার বিল।

স্বাধীনতার পরে তৎকালীন মন্ত্রী আব্দুর রব সেরনিয়াবাত প্রথম সাঁতলায় বাধ দেয়ার কাজ শুরু করেন। সেই থেকে বিল থেকে বিশাল এলাকা উত্থিত হয়ে বর্তমানে মনোরম এলাকায় পরিণত হয়েছে। এই বিলে প্রাকৃতিক ভাবে শাপলা ফোটে।

সাধারণত সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে এই বিলে লাল শাপলা ফুল ফোটে। তখন নৌকা নিয়ে এই বিলে যাওয়া আরেক প্রাপ্তি।

এই বিলে শুধু শাপলাই ফোটে না-শীতের মৌসুমে যখন পানি কমে যায়, তখন সব শাপলা মরে যায়, কৃষকরা এখানে ধান চাষ করে।

একই সাথে ধান ও শাপলার এই সহাবস্থান আর কোথাও আছে কিনা সন্দেহ। সাঁতলার এই বিল তাই অনন্য।

সাঁতলার এই বিলে আপনাকে স্বাগতম।

satla-sapla


ফেসবুকে মন্তব্য করুন :

টি মন্তব্য
মন্তব্যে প্রকাশিত যেকোন কথা মন্তব্যকারীর একান্তই নিজস্ব। Gournadi.com-এর সম্পাদকীয় অবস্থানের সঙ্গে এসব অভিমতের কোন মিল নেই। মন্তব্যকারীর বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে Gournadi.com কর্তৃপক্ষ আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো দায় নিবে না

আরো পোষ্ট...

Leave a Reply